স্বাধীনতা (কবিতা)

মুহাম্মাদ ইমাদ উদ্দীন | ফাজিল ৩য় বর্ষ, দারুননাজাত সিদ্দীকিয়া কামিল মাদরাসা, ঢাকা


অনেক অপেক্ষা—
লড়ে যাওয়া; ক্ষয়ে যাওয়া…

অতঃপর স্বাধীন ভূখণ্ড!
সোনালী সূর্যের যত আলো
আর জোছনা চাঁদের যত মায়া;

সব নিজের ভেবে পাওয়ার স্বস্তি!
নড়বড়ে হোক—
তবুওতো মুক্ত করা তরীটা আমার বলা যায়।

সয়ে সয়ে ঝিমিয়ে পড়া, আবার গর্জে উঠা
এই উত্থান-পতন আর
পতন-উত্থানে অর্জিত বাংলাদেশ
চাই না এমন হোক—
সময়ে সময়ে কোনো না কোনো এক গোষ্ঠীর
যারা পালাক্রমে হবে একজন আরেকজনের জম;
মাঝখানে জ্বলবে জনসাধারণ!
চাই না ক্ষুদ্র কোনো ফোড়া শরীরে লেগে থাক,
যা প্রগতির ছলে দেহের বাইরে-ভেতরে পোড়ায়!

আমার এ বাংলাদেশ হোক—
শান্ত-সুন্দর এক ঠিকানা; সীমাহীন সুখের সমারোহ
যেখানে থাকবে না শ্রেণির ভোগবাদ
যে বুকের সব লোকেরাই সমান…

 

আপনার মন্তব্য