তাবলীগের সাথীদের প্রতি কাকরাইলের জরুরি হিদায়াত

ইজতেমা পরবর্তী সময়ে আহলে শূরার সাথীদের উদ্দেশ্যে দাওয়াত ও তাবলীগের বিষয়ে জরুরি নির্দেশনা দিয়েছে তাবলীগের মারকাজ মসজিদ কাকরাইল কর্তৃপক্ষ।

গত বুধবার (২২ জানুয়ারি) বাংলাদেশ তাবলীগ জামাতের মুরুব্বি ও শুরা সদস্য মাওলানা রবিউল হক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে সাথীদের উদ্দেশ্যে জরুরি এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নবীওয়ালা এই মহান দাওয়াতের কাজে ছাত্রদের সম্পৃক্ত করার জন্য আমাদের বড়রা কাজের শুরু থেকে ফিকির ও প্রচেষ্টা করে এসেছেন, এই সুবাদে আজ কাকরাইলের মাশওয়ারাতে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, আসন্ন এস,এস,সি ও দাখিল সমমানের পরীক্ষা শেষে সকল ছাত্র যেন আল্লাহর রাস্তায় কমবেশি বের হয়, সেই দিকে সকলের মনোযোগ আকর্ষণ করা হয়েছে।

‘প্রতিটি মসজিদে ছাত্রদের তালিকা বানিয়ে গাশতের মাধ্যমে তাদেরকে তাবলীগে সময় লাগাতে উদ্বুদ্ধ করতে বলা হয়েছে এবং যারা রাজি হবেন তাদের সাথে গার্ডিয়ান ও মুরব্বিদের রাহবার হিসাবে দিতে হবে, যাতে সকলেই বেশি বেশি উপকৃত হতে পারে।’

‘প্রতিবছরের ন্যায় এবারও এস.এস.সি ও দাখিল পরীক্ষার্থীদের খুরুজ নিজ নিজ জেলা থেকেই হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।  এছাড়াও এ জামাতগুলোর প্রতি বিশেষভাবে যত্ন নিতে জেলা পর্যায়ের সাথিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে।  যারা হজ ও ওমরায় মাস্তুরাতসহ তাবলীগের কাজ করবেন, তাদের মধ্যকার কেবল পুরুষদের আগামী ৮ই ফেব্রুয়ারি শনিবার সকাল ০৯.০০ ঘটিকায় জামাত বন্দি ও ছোয়াদ হওয়ার জন্য কাকরাইলে আসার জন্য বলা হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: