বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ইসলামী ব্যক্তিত্ব এরদোগান, ৬ নম্বরে আছেন মুফতী তাকী উসমানী

২০১৯ সালের বিশ্বের প্রভাবশালী ৫০০ ইসলামি ব্যক্তিত্বের তালিকা প্রকাশ করেছে বিখ্যাত জর্ডানের বিখ্যাত থিংকট্যাংক গ্রুপ রয়্যাল ইসলামিক স্ট্রাটেজিক স্টাডি সেন্টার।

তালিকার প্রথমে আছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়িব এরদোগান।  ২য় ও ৩য় নম্বরে আছেন সৌদি বাদশাহ সালমান ও জর্দানের বাদশাহ আব্দুল্লাহ।  ১০ম নম্বরে আছেন কারান্তরীণ বিখ্যাত সৌদি আলেম শায়খ সালমান আল আউদার নাম।

তবে প্রকাশিত প্রথম পঞ্চাশজন ব্যক্তিত্বের মধ্যে বাংলাদেশের কারো নাম নেই।

 

রয়্যাল ইসলামিক স্ট্রাটেজিক স্টাডি সেন্টার (জর্ডান) ২০০৯ সাল থেকে প্রতি বছর বিশ্বে সবচে প্রভাবশালী ৫০০ ইসলামি ব্যক্তিত্বের তালিকা প্রকাশ করে। এই বছর ৫০০ মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকায় সবচে বেশি এসেছে আমেরিকান মুসলিমদের নাম।

পাকিস্তানের প্রায় আঠারো জন ইসলামি ব্যক্তিত্বের নাম এসেছে জরিপে প্রকাশিত তালিকায়। ৬ষ্ঠ নম্বরে আছেন মুফতী ত্বকী উসমানী। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আছেন ২৯ নম্বরে, আর মাওলানা তারিক জামিলের নাম ৪০ নম্বরে।

 

সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান আছেন ১৩ নম্বরে। আরব আমিরাতের যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন যায়েদ ১৫ নম্বরে। আর হিযবুল্লাহ প্রধান হাসান নাসরুল্লাহ আছেন ২৩ নম্বরে।

 

প্রভাবশালী ইসলামি ব্যক্তিত্তের নামের তালিকায় ভারতের নির্বাসিত ইসলামি ব্যক্তিত্ব ডাক্তাঁর জাকির নায়েকের নামও আছে। এছারাও মিশরের ফুটবলার মুহাম্মাদ সালিহের নামও আছে ৪৬ নম্বরে।

 

তালিকায় পাকিস্তানের পরমাণু বিজ্ঞানী ডক্টর আব্দুল কাদের, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ, জমিয়ত প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান, জামায়াতে ইসলামির আমির সিরাজুল হক প্রমুখের নামও স্থান পেয়েছে।

 

তবে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মুহাম্মাদের নাম তালিকায় অনেক পরে ৪৪ নম্বরে।  ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আলি খামেনির নাম এসেছে ৪র্থ নম্বরে।  ভারতের মাহমুদ মাদানি ৩২ নম্বরে।  শায়খ ইউসুফ কারদাবি ৩০ নম্বরে। তালিকায় সরকার পন্থী সিরিয়ার বিতর্কিত ইসলামি স্কলার হামযাহ ইউসুফের নামও আছে।

সূত্র : রয়্যাল ইসলামিক স্ট্রাটেজিক স্টাডি সেন্টার জর্ডান

2 thoughts on “বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ইসলামী ব্যক্তিত্ব এরদোগান, ৬ নম্বরে আছেন মুফতী তাকী উসমানী

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: