পশুর মধ্যে যেসব ত্রুটি থাকলে কুরবানী দেয়া যাবে এবং যাবে না

পশুর মধ্যে যেসব ত্রুটি থাকলে কুরবানী দেয়া যাবে না :

(১) যে পশুর দৃষ্টিশক্তি নেই।

(২) যে পশুর শ্রবণশক্তি নেই।

(৩) এই পরিমাণ লেংড়া যে, জবাই করার স্থান পর্যন্ত হেঁটে যেতে পারে না।

(৪) লেজের অধিকাংশ কাটা।

(৫) কানের অধিকাংশ কাটা।

(৬) অত্যন্ত দুর্বল, জীর্ণ-শীর্ণ প্রাণী।

(৭) গোঁড়াসহ শিং উপড়ে গেছে।

(৮) পশু এমন পাগল যে, ঘাস পানি ঠিকমত খায় না। মাঠেও ঠিকমত চরানো যায় না।

(৯) জন্মগতভাবে কান নেই।

(১০) দাঁত মোটেই নেই বা অধিকাংশ নেই।

(১১) স্তনের প্রথমাংশ কাটা।

(১২) রোগের কারণে স্তনের দুধ শুকিয়ে গেছে।

(১৩) ছাগলের দুটি দুধের যে কোন একটি কাটা।

(১৪) গরু বা মহিষের চারটি দুধের যেকোনো দুটি কাটা।

(১৫) জন্মগতভাবে একটি কান নেই।

 

*পশুর মধ্যে যেসব ত্রুটি থাকলে কুরবানী দেয়া যাবে :

(তবে উত্তম হচ্ছে পরিপূর্ণ সুস্থ পশু দেয়া, ত্রুটিযুক্ত প্রাণী না দেয়া)

(১) পশু পাগল, তবে ঘাস-পানি ঠিকমত খায়।

(২) লেজ বা কানের কিছু অংশ কাটা, তবে অধিকাংশ আছে।

(৩) জন্মগতভাবে শিং নেই।

(৪) শিং আছে, তবে ভাঙ্গা।

(৫) কান আছে, তবে ছোট।

(৬) পশুর একটি পা ভাঙ্গা, তবে তিন পা দিয়ে সে চলতে পারে।

(৭) পশুর গায়ে চর্মরোগ।

(৮) কিছু দাঁত নেই, তবে অধিকাংশ আছে। স্বভাবগত এক অণ্ডকোষ বিশিষ্ট পশু।

(১০) পশু বয়োবৃদ্ধ হওয়ার কারণে বাচ্চা জন্মদানে অক্ষম।

(১১) পুরুষাঙ্গ কেটে যাওয়ার কারণে সঙ্গমে অক্ষম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: