অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা খরচ করা যাবে কি?

প্রশ্ন: স্বামীর টাকা না জানিয়ে স্ত্রী তার বাবা-মা বা ভাইকে দেওয়া জায়েজ হবে? স্বামীকে জানিয়ে দিলে, স্বামী কিছু বলবেন না—এমন অবস্থায় না জানিয়ে কিছু টাকা দিলে গুনাহ হবে? দেখা যায়, স্বামী এমনিতে স্ত্রীর কাছে টাকা রেখে বলেন, প্রয়োজন মতো তুমি খরচ করতে পারো। এমন অবস্থায় অনুমতি ছাড়া খরচের সঠিক বিধান জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর: অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা খরচ করা স্ত্রীর জন্য জায়েজ নেই। তবে স্ত্রী যদি জানেন, নিজের মা-বাবা অথবা ভাইয়ের জন্য অল্প-স্বল্প খরচ করলে কিংবা মাঝে মধ্যে তাদের হাদিয়া দিলে স্বামী মন খারাপ করবেন না; তাহলে এমন কিছু ক্ষেত্রে স্বামীর স্পষ্ট অনুমতি ছাড়া স্ত্রী খরচ করতে পারবেন। যেহেতু স্বামী এতে সায় দেবেন এবং আপত্তি করবেন না বলে—স্ত্রীর প্রবল ধারণা রয়েছে। আর এতে তারা দুইজনই সওয়াব পাবেন।

আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, ‘যদি কোনো স্ত্রী ক্ষতি না করে বাড়ির খাবার থেকে দান করে, তাহলে সে তার দানের সওয়াব পাবে এবং তার স্বামী এ খাবার উপাজর্নের কারণে সওয়াব পাবে। আর সঞ্চয়কারীও সওয়াব পাবে। এদের কেউ অন্যের সওয়াবে কমতি করবে না।’ (মুসলিম, হাদিস নং: ১৭০৬)

কিন্তু স্বামী যদি রাগ করেন বা নিষেধ করেন, তাহলে কম হোক বা বেশি হোক—তার সম্পদ খরচ বা দান-সদকা করা থেকে বিরত থাকা অত্যাবশ্যক। কারণ, রাসুল (সা.) বলেন, ‘মহিলা তার স্বামীর বাড়ির কোনো অর্থ-সম্পদ তার অনুমতি ছাড়া খরচ করবে না। জিজ্ঞেস করা হলো, খাদ্যদ্রব্যও নয়? তিনি বলেন, এটি তো আমাদের সবচেয়ে উত্তম সম্পদ।’ (আবু দাউদ, হাদিস নং: ৩৬৬৫)

 

আপনার মন্তব্য