অমুসলিম ব্যক্তিকে সালাম দেওয়া যাবে কি?

অমুসলিমদেরকে সালাম দেওয়া যাবে না। রাসূলুল্লাহ [সা.] বলেন, তোমরা ইহূদী ও নাছারাদেরকে প্রথমে সালাম দিবে না (মুসলিম, মিশকাত হা/৪৬৩৫)। তবে যদি তারা সালাম দেয় তবে শুধু ওয়াআলাইকুম (আপনার উপরেও) বলে উত্তর দিতে হবে। [মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/৪৬৩৭] আবূ হুরাইরা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ইয়াহুদি-খ্রিষ্টানদেরকে প্রথমে সালাম দিয়ো না। যখন পথিমধ্যে তাদের কারো সাথে সাক্ষাৎ হবে, তখন তাকে পথের এক প্রান্ত দিয়ে যেতে বাধ্য করো। [মুসলিম ২১৬৭, তিরমিযি ২৭০০, আবু দাউদ ১৪৯, আহমদ ৭৫১৩,৭৫৬২, ৮৩৫৬, ৯৪৩৩, ৯৬০৩, ১০৪৪১৮]

হিন্দুদের বা কোন অমুসলিমকে সালাম দেওয়া যাবে না। তবে শিষ্টাচারমূলক সম্ভাষণ করা যাবে। যেমনআদাব ইত্যাদি। সালাম অর্থ শান্তি। মুসলমান পরস্পরকে সালাম দেওয়ার মাধ্যমে আল্লাহর পক্ষ হতে তার উপরে শান্তি বর্ষণের দোআ করেন।

হিন্দুগণ ঈমানদার নন বিধায় তাদেরকে ইসলামী তরীকায় সালাম দেওয়া যাবে না বা ইসলামী আক্বীদা বিরোধী কোন শব্দ, বাক্য বা ইঙ্গিত করা যাবে না। যেমন নমষ্কার করা অর্থ আমি আপনার প্রতি মাথা ঝুঁকালাম। আপনি কবুল করুন। অনুরূপভাবেনমস্তে বলা যাবে না। যার অর্থ আমি আপনার প্রতি মাথা ঝুঁকালাম। একইভাবে কারুপ্রতি সম্মানার্থে মাথা হেঁট করা কিংবা পিঠ ঝুঁকানো যাবে না

[বিস্তারিত দ্র: যাদুল মাআদ ২/৩৮৮; মাজমূআ ফাতাওয়া উছায়মীন ৩/৩৩; আল-মওসূআতুল ফিক্বহিইয়াহ ২৫/১৬৮ প্রভৃতি] গ্রন্থনা ও সম্পাদনা : মাওলানা মিরাজ রহমান

আপনার মন্তব্য