সম্পত্তিতে মুসলিম নারীদের সমানাধিকারে আপত্তি ভারত সরকারের

মুসলিম আইনে সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ক্ষেত্রে লিঙ্গ বৈষম্য রয়েছে, এই আবেদন জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে যে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল, তার বিরোধিতা করেছে ভারত সরকার। সোমবার দিল্লি হাইকোর্টে ওই জনস্বার্থ মামলাকে নাকচ করার দাবি তোলে দেশটির আইন ও বিচার মন্ত্রণালয়।

এই প্রসঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আদালতে হলফনামা জমা দেওয়া হয়। হলফনামায় বলা হয়েছে, বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ব্যক্তিগত সম্পর্ক আইন বিভিন্ন। এক্ষেত্রে অভিন্ন আইন অনুসরণ করার জন্য আইন কমিশনকে অনুরোধ করেছে সরকার।

ভারত সরকারের পক্ষে দিল্লি আদালতে হলফনামা জমা দেন মনিকা অরোরা। তিনি বলেন, ‘এই প্রসঙ্গে আইন কমিশনের রিপোর্ট আসামাত্র সংশ্লিষ্ট সম্প্রদায়ের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

কেন্দ্রের বক্তব্য, সম্পত্তিতে মুসলিম নারীদের সমানাধিকার দাবি করা আবেদন আইনে টিকবে না। অনুরূপ একটি আবেদন নাকচ করতে বাধ্য হয়েছে কেরালা উচ্চ আদালত। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, মুসলিম ব্যক্তিগত আইনের সাংবিধানিকতা জনস্বার্থ মামলার ভিত্তিতে বদলানো যাবে না। সম্পত্তির বিষয়ে মুসলিম নারীদের উত্তরাধিকার প্রসঙ্গে নতুন কোনও আইন আনা যায় কিনা, সেই সিদ্ধান্ত নেবে আইনসভা।

সম্পত্তিতে মুসলিম নারীদের সমানাধিকার দাবি করে প্রথম আবেদন জানিয়েছিল সাহারা কল্যাণ সমিতি। তাদের অভিযোগ ছিল, সম্পত্তির উত্তরাধিকারে লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার হন মুসলিম নারীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: