তাবলিগ ইস্যুতে ৩ দেশের মারকাজে পাকিস্তানের শীর্ষস্থানীয় আলেমদের চিঠি

পাকিস্তানের খ্যাতিমান ২৬ জন আলেম ভারতের তাবলিগের প্রধান মারকাজ নিজামুদ্দিন, পাকিস্তানের রায়েবেন্ড মারকাজ, বাংলাদেশের কাকরাইল মারকাজের মুরব্বিদের প্রতি এক গুরুত্বপূর্ণ চিঠি পাঠিয়েছেন।

গতকাল রোববার পাকিস্তানের শীর্ষ আলেমদের স্বাক্ষরিত এ চিঠি তিনটি মারকাজে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা যায়। তাবলিগের চলমান সংকট নিরসনে কার্যত উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্যই এ চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রেরিত চিঠির সূত্রে জানা যায়, তাবলিগের চলমান সংকট নিরসনে পাকিস্তানের আলেমগণ ৭ সদস্যের এক কমিটি গঠন করেছেন। উভয় গ্রুপের ঐক্য ও সমাধানের জন্য নির্ধারিত কমিটির মধ্যে রয়েছেন, মুফতি মাওলানা মুহাম্মদ, জামিয়াতুর রশিদ, করাচি।  মাওলানা এমদাদুল্লাহ, মুহাদ্দিস, জামিয়াতুল উলুমুল ইসলামিয়া, করাচি।

মাওলানা কাজি আবদুর রশিদ, মুহতামিম, জামিয়া ফারুকিয়া রাওয়েলপিন্ডি, মাওলানা ড. জুবায়ের আহমদ উসমানি, মুহাদ্দিস, দারুল উলুম করাচি। হাফেজ মাওলানা সওকত আলী, দারুল উলুম হক্কানিয়া, মুফতি সাইফুর রহমান, কোয়েটা, বেলুচিস্তান। মাওলানা তাহের মাসউদ, জামিয়া মিফতাহুল উলুম সারগোদাহ। বৈঠকে সমস্যা সমাধান করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবেন বলে জানা যায়।

উভয় গ্রুপকে অতীতের সব ভুল বুঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে, সমস্যা সমাধানে শুধু আল্লাহর জন্য এক জায়গায় একত্রিত হওয়ার আহ্বান করেন আলেমগণ।

মুফতি রফি উসমানি, মুহতামিম, দারুল উলুম করাচি, মুফতি তাকি উসমানি, নায়েবে মুহতামিম, দারুল উলুম করাচি, মাওলানা আনোয়ারুল হক, মুহতামিম, দারুল উলুম হক্কানিয়া সহ পাকিস্তানের শীর্স্থানীয় ওলামায়ে কেরাম এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এ বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনার পর কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহিত হয়।

১. অল্প দিনের মধ্যেই তাবলিগের মুরব্বিদের নিকট চিঠি পাঠানো হবে।
২. উলামায়ে কেরামের বৈঠকে নির্ধারিত কমিটির সদস্যগণ তাবলিগের দুই গ্রুপের মুরব্বিদের সঙ্গে দেখা করে উভয় গ্রুপের দাবিগুলো শুনে সে অনুযায়ী পরামর্শ করে চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনের চেষ্টা করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: