কালিমার মাধ্যমে দোয়া শেষ করা কি জরুরী?

 দোয়ার একটি আদব হলো- আল্লাহ তা’আলার হামদ-ছানা (প্রশংসা) ও দরুদ শরীফে শুরু করা এবং শেষ করা। তাছাড়া হাদীস থেকে এ বিষয়টিও বোঝা যায়, দোয়া সমাপ্ত হবে ‘আমীন’-এর মাধ্যমে। কিন্তু, অনেককে দেখা যায়, তারা দোয়া শেষ করেন কালিমার মাধ্যমে। তারা এভাবে বলে থাকেন- ‘হে আল্লাহ! মৃত্যুর সময় জবানে জারি করে দিও- ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ সা.।’

অথবা উক্ত কথাই আরবিতে বলে থাকেন- ‘ওয়াজ’আল আখিরা কালিমাতিনা ইংদাল মাওতি ‘লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ।’

অর্থাৎ কালিমার মাধ্যমে তারা দোয়া শেষ করেন। এটি দোয়ার আদব নয় বরং এর কারণে দোয়া সমাপ্ত করার সুন্নাহসম্মত আমল ছুঁটে যায়।

হ্যাঁ, দোয়ার মধ্যে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থনা, হে আল্লাহ আমার শেষ কথা হোক তোমার কালিমা। হাদীস শরীফে এসেছে- ‘যার শেষ কথা হবে ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ সে জান্নাতে যাবে।’ (সুনানে আবু দাউদ, হাদীস ৩১১৬)

কিন্তু, কালিমার মাধ্যমে দোয়া শেষ করা একটি রসম মাত্র। এটিকে সুন্নত মনে করা যাবে না। সুন্নত তা-ই, যা উপরে বলা হয়েছে। অর্থাৎ হামদ, ছানা ও দরুদ শরীফের মাধ্যমে দোয়া শুরু ও শেষ করা। দয়াময় আল্লাহ আমাদের সবাইকে সঠিক পদ্ধতিতে আমল করার তাওফিক দান করুন, আমীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: