ঘটনার বিবরণঃ র‍্যাফেল ড্রর মাধ্যমে টিভি ও মোবাইল পুরস্কার পাওয়া এবং তার সমাধান

প্রশ্নোত্তর বিভাগCategory: ধর্মীয় জিজ্ঞাসাঘটনার বিবরণঃ র‍্যাফেল ড্রর মাধ্যমে টিভি ও মোবাইল পুরস্কার পাওয়া এবং তার সমাধান
ঘটনার বিবরণঃ র‍্যাফেল ড্রর মাধ্যমে টিভি ও মোবাইল পুরস্কার পাওয়া এবং তার সমাধান 1Md. Abu Kaisar asked 11 months ago

আমি মোঃ আবু কায়সার, ঠিকানাঃ কাওরানবাজার ঢাকা, ০১৭৩০৩৩৫৩৯৫ঘটনার বিবরণঃ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে আমার পরিচিত এক মুসলিম অফিসের পিকনিকে র‍্যফেল ড্রর মাধ্যমে টিভি ও মোবাইল পেয়েছে। সংস্থার পক্ষ থেকেই এই পিকনিকের আয়োজন করা হলেও পিকনিকের সমস্ত টাকা সংস্থা দেয়নি। এমপ্লয়িদের নিকট থেকে বিভিন্ন হারে চাদা তোলা হয়েছে এবং সংস্থা ২০-২৫ লক্ষ(আনুমানিক) টাকার মত বড় এমাউন্ট ডোনেশন দিয়েছে। সংস্থার পক্ষ থেকে র‍্যাফেল ড্রর টিকিট বাবদ প্রতি টিকিটে ৫০ টাকা করে নিয়েছে। প্রকৃত পক্ষে অফিসের দপ্তর প্রধানের মাধ্যমে র‍্যাফেল ড্রর টিকিট বিক্রি করা হয়েছিল। তার অফিসে বস যখন র‍্যাফেল ড্রর টিকিট কেনার জন্য বলেন, তিনি ১০ টি টিকিট ক্রয় করে ফেলেন, দূর্ভাগ্যক্রমে তার টিকিটেই টিভি ও মোবাইল পেয়ে যায়। এই ভদ্র লোক লটারী সংক্রান্ত শরীয়তের সব আহকাম পুংখানুপুংখানু ভাবে না জানলেও, এই খেলায় যে শরিয়ত বিরোধী তা ভাসাভাসা জানত। জানার পর থেকে এ ব্যক্তি তার এ হারাম কাজের জন্য অনুতপ্ত। তিনি সওয়াবের আশা না রেখেই মোবাইলটা তার এক আত্নীয়কে দিয়ে দিয়েছে (হারাম মাল উল্লেখ করেই দিয়েছে) কিন্তু টিভিটা বাসার চাপেই তিনি নিজের বাসাতেই ব্যবহার করছে। এখন তিনি এর থেকে মুক্তি পেতে চান। তিনি জেনেছেন সওয়াবের আশা না রেখে টিভিটা বিক্রি করে সদকা করে দেয়াই উত্তম। সওয়াবের আশা না রেখে তিনি টিভির বর্তমান বিক্রিত মূল্য(সর্বোচ্চ ২০,০০০/) তার আহলিয়ার এক অভাবী আত্নীয়াকে সদকা করে দিতে চান। উল্লেখ্য টিভির প্রকৃত মূল্য (৩৫-৪০ হাজার হতে পারে) আরও বেশী কিন্তু সংস্থার পিকনিকের দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা তা জানান নি।শরীয়ামতে জানতে চাওয়াঃ১) সওয়াবের আশা না রেখে তিনি টিভির বর্তমান বিক্রিত মূল্য(সর্বোচ্চ ২০,০০০/) তার আহলিয়ার এক অভাবী আত্নীয়াকে কি সদকা করে দিতে পারেন? না হলে, কি করলে তার এ না হক হারাম কাজের হক আদায় হবে?২) মোবাইল দান করার ক্ষেত্রেও তিনি সওয়াবের আশা করেন নি। এতে কি তার হক আদায় হয়েছে? না হলে, কি করলে তার এ না হক হারাম কাজের হক আদায় হবে?